পশ্চিম বর্ধমানে শ্রমজীবী মহিলা দের সুবিশাল মিছিল আইন অমান্য আন্দোলনে ভাঙল ব্যারিকেড

District News Paschim Bardhaman

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক,আসানসোল,৬ ই মার্চ:রাজ্যজুড়ে আইন অমান্য আন্দোলনের ডাক দিয়েছিল মহিলা শ্রমজীবী সংগঠন, তাদের নেতৃত্বে আইন অমান্য আন্দোলন ব্যাপক প্রভাব পড়ে সারা রাজ্য জুড়ে ।আইন অমান্য ঘিরে পশ্চিম বর্ধমান জেলায় ঘটে ধুন্ধুমার কান্ড, শতাব্দি পার্ক থেকে সুবিশাল মিছিল আইন মহকুমা শাসক দপ্তরের সামনে এগিয়ে যায়। সমকাজে সমবেতন ও নূন্যতম মজুরী , প্রকল্প কর্মীদের শ্রমিকের মর্যাদা প্রদান ,মহিলা শিশুদের বিরুদ্ধে হিংসা ও আক্রমণ বন্ধ করা , ৩৩ শতাংশ সংরক্ষণ সহ একাধিক দাবি নিয়ে আজকের এই আইন অমান্য আন্দোলনের ডাক দিয়েছিল শ্রমজীবী মহিলা সংগঠন।

বহু মহিলা শ্রমিকরা অংশগ্রহণ করে এই আইন অমান্য আন্দোলনে। পশ্চিম বর্ধমান একটা সময় শিল্প জেলা হিসেবে পরিচিত ছিল একাধিক শিল্প গড়ে উঠেছে আজ অনেকটাই অতীত অনেক শিল্প বন্ধ হয়ে গেছে অনেক শ্রমিক কাজ হারিয়েছেন সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়েছে মহিলা শ্রমিকদের উপর। সংসার বাঁচানোর দাবি নিয়ে যোগ দিলেন কয়েক হাজার মহিলা শ্রমিকরা, স্লোগানে মুখরিত হয়েছে হার মানবো না ।

আজকের শ্রমজীবী মহিলারা দুপুর তিনটে থেকে এই সুবিশাল মিছিল শুরু হয় শতাব্দি পার্ক  প্রায় পাঁচ হাজার মানুষের গ্রেফতার বরণে ঘোষণার মধ্য দিয়ে । অনেকেই মনে করছেন এই মিছিল থেকেই আগ্রাসী মনোভাব ফুটে উঠেছে শ্রমিকদের। বামেদের নির্বাচন ভোট শতাংশের বিচারে পিছিয়ে কিন্তু লড়াই-সংগ্রামে বামেরা আজও নিয়ন্ত্রক শক্তি তা প্রমাণ করে দিল পশ্চিম বর্ধমানের আইন অমান্য আন্দোলন। মহকুমা শাসক দপ্তরে সামনে মিছিল শেষ তখন শতাব্দী পার্ক থেকে কিছুটা বেরিয়েছে ।এই সুবিশাল মিছিল দেখে হতবাক রাজনৈতিক মহল ।

মিছিলের নেতৃত্ব দিলেন গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতির জেলা নেতৃত্ব ছিলেন সিআইটিইউ জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যরাও। এই আইন অমান্য বিভিন্ন জেলায় সংঘটিত হয়েছে তবু পশ্চিম বর্ধমান অন্যরকম ছাপ রেখে গেল ভাঙলো ব্যারিকেড ব্যারিকেড ভেঙে তাদের দাবি আদায়ে মুখরিত করল মহিলা শ্রমিকরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *