স্টিং অপারেশনে ধরা পড়ল পয়সা নিয়ে বিজেপির হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার চালাচ্ছেন তারকারা

Cinema News

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক,২০ ফেব্রুয়ারি:
বিখ্যাত তদন্তকারী ওয়েবসাইট কোবরা পোস্ট ভারতের বিনোদন জগতের সঙ্গে যুক্ত ৩৬ জন তারকার মুখোশ খুলে দিল। তারা ফাঁস করলো এরা ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির পক্ষে অনুকূল পরিস্থিতি তৈরি করতে অর্থের বিনিময়ে নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট বিজেপির পক্ষে রাজনৈতিক প্রচার চালাবেন কৌশলে। এই কাজ করতে সহমত হয়েছেন সিনেমা, টিভি তারকা ছাড়াও গায়ক সোশ্যাল মিডিয়া সেলিব্রেটিএবং স্ট্যান্ড আপ কমিডিয়ানরাও।

এই কাজ করছেন এমন অভিনেতা অভিনেত্রীরা হলেন সানি লিওন,আমিশা পাটেল, মহিমা চৌধুরী,রাখি সাওয়ন্ত, ইভলিন শর্মা , বিবেক ওবেরয়, জাকি শ্রফ, টিস্কা চোপড়া ,শক্তি কাপুর ,সোনু সুদ,শ্রেয়াস তলপাড়ে, পুনিথ ঈশ্বর,সুরেন্দ্র পাল ,পঙ্কজ ধির এবং তার ছেলে নিকি তান ধির। দীপশিখা নাগপাল,আখিলেন্দ্র মিশ্রা,রোহিত রায় ,রাহুল ভাট,সেলিম জেদি, আমান ভার্মা,হিতেন তেজওয়ানি ও স্ত্রী গৌরী প্রধান, মনিশা লম্বা ও কোয়েনা মিত্র। অন্যান্য সেলিব্রিটি ও গায়কদের মধ্যে পুনম পান্ডে অভিজিৎ ভট্টাচার্য মিকা সিং এবং বাবা স্যাডেল রয়েছেন। রাজু শ্রীবাস্তব , সুনিল পাল, রাজপাল যাদব,শ্রীকৃষ্ণ অভিষেক,বিজয় ঈশ্বর, লাল পাওয়ারের মত কমিডিয়ান রয়েছেন এই তালিকায়। যারা ক্যামেরার সামনে স্বীকার করেছেন যে তারা পয়সা নিয়ে রাজনৈতিক দলের( বিজেপির) প্রচার করছেন।

এছাড়াও কোরিওগ্রাফার গণেশ আচারিয়া এবং বিগ বসের পূর্ব প্রতিযোগী সম্ভাবনা শেঠও নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট কে ব্যবহার করছেন নির্বাচনে রাজনৈতিক পার্টির হয়ে প্রচারের জন্য। তবে বিজেপিকে এই সাহায্য করার জন্য পয়সা নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন ক্যামেরার সামনে।

কোবরাপোস্ট এর তদন্তকারি সাংবাদিক একটি নকল পিআর এজেন্সি প্রতিনিধি সেজে ও নিজের নকল নাম ব্যবহার করে এইসব সেলিব্রেটিদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি এই সমস্ত সেলিব্রিটির কাছে, একটি সহজ প্রশ্ন নিয়ে যোগাযোগ করেন, “আপনি কি টুইটার, ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে কোন রাজনৈতিক পার্টির হয় প্রচার করার জন্য প্রস্তুত পয়সার বিনিময়ে?” নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক দলের প্রচার পোস্ট করার জন্য সহমত হাওয়া সেলিব্রেটি তালিকা দেখেঅবাক হয়ে যেতে হয়।

ক্যামেরার সামনে তাদের এই স্বীকারোক্তির তথ্য বলে দিচ্ছে অর্থের বদলেএই ধরনের কাজ করতে তারা এতটুকুও সংকোচ বোধ করছেন না।
এদের মধ্যে বেশিরভাগই নগদ অর্থের লেনদেন করতে তৈরি। যাকে কালোটাকা বলা হয়।

কোবরাপোস্ট এর সাংবাদিককে সানি লিওন বলেনযে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদি সরকার যদি ওনার স্বামী ডেনিয়েল ওয়েবারকে ভারতের প্রবাসী নাগরিকের তকমা দিতে রাজি হন তাহলে তিনি বিজেপিকে সমর্থন করবেন। পর্ন স্টার সানি লিওন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী। এই কাজের জন্য ৫ কোটি টাকা তিনি দাবি করেন। এই সানি লিওনের ফেসবুকের ফলোয়ার ২৩ মিলিয়ন, টুইটারে ফলোয়ার ৪ মিলিয়ন ও ইনস্টাগ্রামে ফলোয়ার ১৯ মিলিয়ন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিকে তার ভূমিকায় যিনি অভিনয় করবেন সেই ও বিবেক ওবেরয় এই সৌদা করতে এত উৎসুক ছিলেন যে ক্যামেরার সামনেই তিনি বলে ফেলেন “আমি এই কাজ সেপ্টেম্বর থেকেই শুরু করতে চাই, তাই তাড়াতাড়ি বিল সেরে নিন। আমি যেখানেই যাই না কেন সেখান থেকেই টুইট করতে পারব। ইস্যূ আগে
থেকে বলে দেবেন সেই মত পোস্ট করে দেব যেখানেই থাকি।”

একইভাবে সনু সুদ বলেন এই কাজের জন্য তিনি ২০ কোটি টাকা নেবেন। এরপর তিনি প্রতি মাসের জন্য আড়াই কোটি টাকা চান। তিনি বলেন “পাঁচ থেকে সাতটি টুইট তিনি করতে পারেন। তার বার্তা অত্যন্ত মজবুত এবং ভালো হবে।

বলিউডের স্বনামধন্য গায়ক অভিজিৎ ভট্টাচার্য বলেন তিনি বিজেপির প্রচারের জন্য ভিডিও বানাতে পারেন। তার সঙ্গে হায়দ্রাবাদের বিজেপি বিধায়কদের ভালো যোগাযোগ রয়েছে। মুসলিমদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ উগরে দিয়ে তিনি বলেন, “রোহিঙ্গাদের কেন আশ্রয় দেওয়া হবে? ওদের গুলি করে মেরে ফেলা উচিত। আমি বলব রোহিঙ্গাদের গুলি মারো এবং ওদের যারা সমর্থন করছে তাদেরকেও গুলি মেরে দাও। আগে ওদের সমর্থকদের খতম করো তারপর রোহিঙ্গাদের।”

শক্তি কাপুর জানান, নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টকে বিজেপির জন্য ব্যবহার করতে তার কোন অসুবিধা নেই , কারণ তিনিবিজেপি সমর্থক। ২০১৪ তে উত্তরাখণ্ডে তিনি বিজেপি স্টার প্রচারক ছিলেন। মোদীর সঙ্গে তিনি একই মঞ্চ থেকে বক্তব্য রেখেছিলেন।

মিকা সিং বলেন অসমের আর সি নিয়ে তিনি পোস্ট করতেই পারেন। তিনি জানিয়েদেন সোশ্যাল অ্যাকাউন্টে পোস্ট করার কন্টেন্ট পাঠিয়ে দিলেই সেটাকে অল্প সল্প এডিট করে তিনি পোস্ট করে দেবেন।
বিজেপির কর্পোরেট প্রচারের হাইটেক থিওরিতে সামিল হওয়ার জন্য এই আগ্রহ সামনে আসার ফলে গেরুয়া শিবির অস্বস্তিতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *