কাশ্মীর ভাগের পর এবার কি টার্গেট পশ্চিমবঙ্গ ভাগ?

Air Force District News General Election 2019

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক, দিল্লি,১০ই আগস্ট:৩৭০ ধারা অবলুপ্তির পর জম্মু-কাশ্মীর কে দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে ,কাশ্মীরের একটা অংশ লাদাখ অঞ্চলের সঙ্গে চলে যায় এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হিসেবে পরিচিত হয় ।আর একটি অংশ জম্মু কাশ্মীর আরেকটি কেন্দ্রশাসিত রাজ্য হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় ।কাশ্মীর ভাগের পর থেকেই দাবি উঠল গোর্খাল্যান্ডের সেখানকার সংসদ রাজু বিস্টের এর লেখা চিঠিতে স্পষ্ট ধরা পড়লো দার্জিলিংকে আরেকটি রাজ্য করার প্রস্তাব। সেই চিঠির প্রাপ্তি স্বীকার করলেন বি জে পির মহাসচিব অমিত শাহ তিনি বলেন সাংসদ এর চিঠি তিনি পেয়েছেন এবং সেই চিঠির তিনি প্রাপ্তি স্বীকার করছেন।

এই ঘটনার পরই উত্তাল হয়ে উঠল বাংলার রাজনীতি, বিগত বেশ কয়েক দশক ধরেই দার্জিলিং কে আলাদা রাজ্য গোর্খাল্যান্ড করার বারবার দাবি উঠেছে । সুভাষ ঘিসিংয়ের সময় থেকেই আলাদা রাজ্যের দাবি নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংগ্রাম দেখেছে বাংলা।তৎকালীন সময়ে বহু বামকর্মী খুন হত পাহাড়ে। পরবর্তীকালে তিস্তা নদী দিয়ে অনেক জল বয়ে গেছে দল ভাগ হয়েছে নতুন দলের উত্থান ঘটেছে নতুন দল ভেঙেছে সরকারপন্থী দল তৈরি হয়েছে, এই প্রক্রিয়া চলেছে দার্জিলিং জুড়ে বেশ কয়েক বছর ধরেই।

রাজনৈতিক মহল বলেছে বেশ কয়েক দশক ধরে দাবি উঠলেও কি এবার নতুন আঙ্গিকে আসতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ। পশ্চিমবঙ্গে ভেঙ্গে দু’টুকরো করার প্রক্রিয়ায় কি বিজেপির প্রাপ্তি স্বীকার দিল । অমিত শাহ প্রেস বিবৃতি যে বলেছেন সরকার গুরুত্ব সহকারে এই দিবি নিয়ে বিবেচনা করা হচ্ছে। উত্তর পেতে হয়তো আরো কিছুদিন সময় যাবে কিন্তু যেভাবে উঠল বিতর্ক তাতে পশ্চিমবঙ্গের রাজনীতিতে বিজেপিকে অস্বস্তিতে ফেলবে তা নিয়ে কোন সন্দেহ ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *