অ্যাসোশিয়েশন অফ হেলথ সার্ভিস ডক্টরস, পশ্চিমবঙ্গ ২৩ তম রাজ্য সম্মেলন

District News

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক কলকাতা,৭ই মার্চ,আজ মৌলালি যুবকেন্দ্রে, অ্যাসোসিয়েশন অফ হেলথ সার্ভিস ডক্টর্স, পশ্চিমবঙ্গের ২৩ তম রাজ্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হল বিরাট উদ্দীপনা, উৎসাহের সঙ্গে। গত বছর এই সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু করোনা সংকটে তা স্থগিত রাখা হয়েছিল। স্থগিত থাকা সেই সম্মেলনই আজ অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলন উদ্বোধন করেন প্রখ্যাত চলচিত্রকার, অভিনেতা ও চিকিৎসক ডাঃ কমলেস্বর মুখার্জী। উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন সভাপতি ডাঃ বারীন রায়চৌধুরী, ডাঃ প্রদ্যোৎ শূর, ডাঃ গৌতম মুখার্জী এবং সংগঠনের ৩ শতাধিক সদস্য-সদস্যা।

বীমানির্ভর চিকিৎসা ব্যবস্থা নয়, সাধারণ মানুষের স্বার্থে সরকারী স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে উন্নত করা, প্রসারিত করা, সুরক্ষিত ভয়হীন কর্মক্ষেত্র, স্বজনপোষণহীন পদোন্নতি ও বদলি নীতি, বন্ড-চিকিৎসকদের কাজের উপযুক্ত জায়গায় পোস্টিং, বন্ড পিরিয়ড কমানো, স্বেচ্ছাবসরের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়া, পে-কমিশনের বঞ্চনা দূর করা এবং সাধারণ প্রশাসনের সমতুল মর্যাদা ও ইনসেন্টিভ, স্বচ্ছ, স্বজনপোষণ হীন নিয়োগ এবং ন্যাশনাল মেডিক্যাল কমিশনের মেডিক্যাল শিক্ষার বেসরকারীকরন ও মিক্সো-প্যাথি, ক্রস-প্যাথি চালুর প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে আপসহীন লড়াইয়ের স্বর উচ্চারিত হয়েছে প্রতিনিধিদের বক্তব্যে।
চিকিৎসক সমেত সমস্ত পেশাজীবীদের যৌথ সংগ্রামকে আরও শক্তিশালী করার ডাক দেওয়া হয় আজকের সম্মেলনে।
সভ্যতার এই গভীর সঙ্কটে এবং আমফানের মত ভয়ঙ্কর প্রাকৃতিক দুর্যোগে, জীবন বাজি রেখে কাজ করে যাওয়া চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী এবং সংগঠনের সদস্য, সমর্থক, শুভানুধ্যায়ীদের কৃতজ্ঞতা, অভিবাদন, কুর্নিশ জানায় এই সম্মেলন।

মানুষের স্বার্থে শিরদাঁড়া সোজা রেখে, সরকারের প্রতিহিংসার স্বীকার হয়েও লড়াই চালিয়ে যাওয়া ডাঃ অরুণ সিং এবং
ডাঃ অরুণাচল দত্ত চৌধুরীকে সংবর্ধনা দেওয়া হয় সংগঠনের পক্ষ থেকে।

সম্মেলনে উপস্থিত, WBDF, DFD, KMTA, ASETO, WBMSRU, WBSRU এবং রাজ্য কো-অর্ডিনশন কমিটির প্রতিনিধিরা তীক্ষ্ণ ভাষায় রাষ্ট্র এবং রাজ্যের নানান জনবিরোধী, চিকিৎসক-বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে যৌথ লড়াইয়ের প্রয়োজনের কথা তুলে ধরেন। অস্থির সময়ে ভিন্নমত, অন্যমত, গণতান্ত্রিক আন্দোলন যে ভাবে রাষ্ট্রীয় দমন পীড়নের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণের প্রচেষ্টা চলছে, তার বিরুদ্ধে সোচ্চার আন্দোলনের কথাও বলেন। প্রতিবাদী কণ্ঠকে দেশদ্রোহী আখ্যা দেওয়া এবং আইন করে সংবাদমাধ্যম সমেত সমস্ত সমাজমাধ্যম নিয়ন্ত্রনের রাষ্ট্রীয় প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ ধ্বণিত হয় প্ৰতিনিধিদের বক্তব্যে। সম্মেলন থেকে হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় গণতান্ত্রিক অধিকার, সংবিধানের অধিকার এভাবে কেড়ে নেওয়ার প্রচেষ্টা চললে, কেন্দ্র এবং রাজ্যের সরকার যেন ইতিহাসের অনিবার্য পরিণতির জন্যে প্রস্তুত থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *