ভয়ঙ্কর বিপদ! দুর্গাপুরবাসীর বাড়িতে পৌঁছে যাওয়া পানীয় জল পরিশ্রুত নয়, বলছে সিএমআরআই রিপোর্ট

District News Durgapur Paschim Bardhaman

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক,২৬ জুলাই:
জলের অপর নাম জীবন। অথচ দুর্গাপুরের মানুষের সেই জীবন নিয়ে চলছে টানাপোড়েন। করোনা পরিস্থিতিতে আরও এক বড় বিপদ এসে দাঁড়িয়েছে শহরবাসীর সামনে।
হ্যাঁ দুর্গাপুরের মানুষের বাড়িতে বাড়িতে যে পানীয় জল সরবরাহ হচ্ছে তা দূষিত বলে জানা গেল কেন্দ্রীয় সংস্থা সি এম আর আই করা স্যাম্পল সার্ভে রিপোর্ট থেকে।
অর্থাৎ শহরবাসী পানীয় জলের জন্য জলকর দিলেও পান করছে দূষিত জল।

কেন্দ্রীয় সংস্থার কর্তৃক করা সার্ভে রিপোর্ট অনুযায়ী, জলের পিএইচ মাত্রা গ্রহণযোগ্য মাত্রার একেবারে চরমসীমায় রয়েছে। পানীয় জলের মধ্যে ই-কোলাই জীবাণুএবং কলিফর্ম ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতি পাওয়া গেছে। যা মানবশরীরের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক।

এই সার্ভে রিপোর্ট জানার পরেই সিএমআরআই কর্তৃপক্ষ স্বাভাবিকভাবেই তাদের নিজেদের আবাসিকদের বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে দুর্গাপুর পৌরনিগম যে পানীয় জল সরবরাহ করছে তা পরিশ্রুত নয় সঠিকভাবে। তাই পানীয় জল ব্যবহারের ক্ষেত্রে আবাসিকরা যেনো অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বন করেন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দুর্গাপুরের অধিকাংশ জল শোধনাগারগুলি তৈরি হয়েছিল বামেদের আমলে। অভিযোগ উঠেছে এগুলি যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণ হয়নি পরবর্তী সময়ে। এছাড়াও জল পরিশোধনের উপাদান গুলিও উপযুক্ত মাত্রায় ব্যবহার করা হচ্ছে না। অতএব যথাযথভাবে পরিশ্রূত হচ্ছে না শহরবাসীর পানীয় জল।

সম্প্রতি সিপিএমের তরফে একাধিকবার দুর্গাপুর নগর নিগমে এই বিষয়ে ডেপুটেশন দেওয়া হয়েছে। কিন্তু দুর্গাপুর পৌরনিগম এই ব্যাপারে কোনো উদ্যোগই নেয়নি বলে অভিযোগ। ফলে করোনার মত মহামারীর সময় গ্রীন সিটি দুর্গাপুরের মানুষের সামনে আবার এক ভয়ঙ্কর বিপদএসে দাঁড়িয়েছে। করোনার সাথে সাথে জল বাহিত রোগেও শহরবাসী আক্রান্ত হতে পারেন বলে আশঙ্কা করছে বিশেষজ্ঞমহল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *