বন্ধুত্ব কি তাহলে ভ্যানিস? ট্রাম্পের চাপেই কি ওষুধ পাঠাতে রাজি হয়ে গেল মোদী

Delhi

নিউজ ফ্রন্ট লাইনার ওয়েব ডেস্ক, নিউ দিল্লি, ৭ ই এপ্রিল : ফল ভুগতে হবে ভারতকে, যদি ভারত ম্যালেরিয়ার ওষুধ মার্কিন মুলুকে রপ্তানি করার অনুরোধ নাকচ করে দেয়। মোদীর বন্ধুত্বকে এক রকম সরিয়ে রেখে এভাবেই হুশিয়ারি দিয়েছেন মার্কিন রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর এরপরই জরুরি অবস্থায় বেশ কয়েকটি ওষুধ ও ২৪টি ফার্মাসিউটিক্যাল উপাদান রফতানির ওপর থেকে নিয়ন্ত্রণ তুলে নিতে এক রকম বাধ্য হলো ভারত সরকার বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

দেশে করোনা সংক্রমন বাড়তেই এই ওষুধ ও ওষুধ প্রস্তুতির উপাদান গুলি সরবরাহ বন্ধ করেছিল ভারত। কিন্তু তথাকথিত বন্ধু ট্রাম্পের চাপের মুখে নতি স্বীকার করতে হয়েছে ভারতকে। তবে চাপটার ঠিক কিসের তা এখনো স্পষ্ট নয়।

সরকারি সূত্রে জানা গেছে এই রপ্তানি তুলতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের চাপ ছিল ব্যাপক। হাইড্রোঅক্সিনক্লোরোকুইনের অর্ডার মার্চ মাসেই দিয়েছিলে আমেরিকা। মার্কিন রাষ্ট্রপতি ট্রাম্প হুঁশিয়ারি বার্তায় বলেছেন বহু বছর ধরে ভারত আমেরিকার সুবিধা নিয়েছে বাণিজ্যের ক্ষেত্রে। তাই এই মুহূর্তে ভারত যদি পিছিয়ে যায় আমি অবাক হব। তবে যাই সিদ্ধান্ত নিক না কেন ভারত, প্রধানমন্ত্রীকে তা আমাকে জানাতেই হবে। ট্রাম্পের এই মন্তব্যের পরই বেশ কয়েকটি ওষুধ ও চব্বিশটি ফার্মাসিউটিক্যাল উপাদানের রফতানির ওপর থেকে নিয়ন্ত্রণ তুলে নেয় ভারত সরকার। তবে নিয়ন্ত্রণ ওষুধ সংক্রান্ত ক্ষেত্রে এই নিষেধাজ্ঞা তুললেও চিকিৎসা সরঞ্জাম রপ্তানিতে নিষেধাজ্ঞা এখনো পর্যন্ত বহাল রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *