মব লিনচিং এর শিকার এবার পুলিশ কর্মী,নৃশংস ভাবে হত্যা করা হলো

News Political

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক, রাজস্থান, ১৪ ই জুলাই:দেশ জুড়েই মব লিঞ্চিং একটি আশঙ্কার বাতাবরণ তৈরি করেছে, রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহার করে হিংসাত্মক কার্যকলাপের নামই এখন মব লিঞ্চিং নামে পরিচিত ভারতবর্ষের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে। কোন গরু চোর সন্দেহে ব্যবহার করা হচ্ছে তখনও বাচ্চা চুরির অজুহাত দিয়ে জনরোষকে ব্যবহার করা হচ্ছে প্রত্যেক ঘটনাতেই নৃশংসভাবে খুন হতে হচ্ছে অনেক মানুষকে। এবারের রাজস্থানে ঘটনা ঘটলো পুলিশের সঙ্গে। জনরোষ আছড়ে পড়লো পুলিশ কনস্টেবল আব্দুল গনির বিরুদ্ধে ,তিনি একটি জমি সংক্রান্ত বিতর্কে তিনি তদন্তে নেমে ছিলেন খবরে প্রকাশ গ্রামবাসী একত্রিত হয়ে তাকে আক্রমণ করে। নৃশংস ভাবে তাকে খুন করা হয় গ্রামের মধ্যেই।

আজকের এরকম ঘটনা রাজস্থানে বেশ কয়েকবছর ধরেই ঘটছে, ঘটনায় বহু মানুষের প্রাণ গেছে। গতবছর গরু পাচার সন্দেহে প্রায় ৪ জন রাস্তায় পিটিয়ে হত্যা করা হয় ঠিক তার এক বছর আগে ২০১৭ সালে পেহলু খান এবং তার দুই সন্তানের সামনে তাকে নিশংস ভাবে গরু পাচারকারী সন্দেহে তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। শাসক বিজেপির পক্ষ থেকে বারবার এই ব্যবস্থার বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করলেও বহু ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে বিজেপি শাসক দলের কর্মীরাই এই ঘটনাকে সংঘটিত করছে।

বিরোধীদের অভিযোগ মূলত সংখ্যালঘুদের এবং দলিতদের উপর অত্যাচারের এই এই ঘটনাকে তারা ব্যবহার করছে শাসক দল, আক্রান্তের সংখ্যা সংখ্যালঘু সম্প্রদায় ও দলিত দের মধ্যে থেকে উঠে আসছে।
জনরোষে পুলিশের হত্যা গতবছর উত্তরপ্রদেশের বুলন্ডসহরে শহরে ঘটেছিল সে সময় যাকে গ্রেফতার করা হয়েছিল তিনি বিজেপি যুব মোর্চার নেতৃত্ব বলে পরিচিত ।

এবারের ঘটনায় রাজস্থান জুড়ে শুরু হয়েছে চাঞ্চল্য এর ভূমিকায় পুলিশ কে দেখা যায় সেই রক্ষক এই জনরোষের শিকার হতে হচ্ছে এবং নৃশংসভাবে খুন করা হচ্ছে তাহলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোন জায়গায় প্রশ্ন উঠে যাচ্ছে রাজনৈতিক মহল থেকে। পুলিশ এই ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে তো বেশ কয়েকজনকে আটকও করা হয়েছে, কিন্তু এই ঘটনায় রাজ্যের আইন-শৃংখলার অবনতি কে দায়ী করছে বিরোধী পক্ষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *