মাথায় হাত আলু পেঁয়াজ চাষীদের, অকাল বৃষ্টি তে ৫০ শতাংশ ফলন নষ্টের আশঙ্কা

India News

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক, ৩ মার্চ:
অকাল ঝড় বৃষ্টির ফলে মাথায় হাত পড়েছে রাজ্যের আলু ও পেঁয়াজ চাষীদের। গত সপ্তাহের প্রাকৃতিক দুর্যোগেই রাজ্যজুড়ে বিশেষত্ব দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বিপুল ক্ষতি হয়েছে আলুচাষিদের। আশঙ্কা করা হচ্ছে প্রায় ৫০ শতাংশ আলু নষ্ট হয়ে যেতে পারে। প্রায় সাড়ে চার লক্ষ চাষী এই ক্ষতির সম্মুখীন হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই চাষীদের জানানো হয়েছে প্রাকৃতিক দুর্যোগের থামার তিন দিনের মধ্যে বীমার টাকা চাইতে হয়। তাই শীঘ্রই সেই আবেদন করতে। সরকার ৫ টাকা ৫০ পয়সা কেজি দরে চাষীদের কাছ থেকে আলু কিনবে। তার জন্য বিজ্ঞপ্তিও জারি হয়েছে। কিন্তু তার আগেই সোমবার থেকে ফের ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। এবারও শিলাবৃষ্টি কালবৈশাখীর প্রবল সম্ভাবনার কথা শুনিয়েছে আবহাওয়া দফতর। ফলে কপালের চিন্তার ভাঁজ আরো চওড়া হয়েছে আলু ও পেঁয়াজ চাষীদের। সোমবার বিকেল থেকে বৃষ্টি শুরু হতে পারে। বুধবার বার পর্যন্ত বৃষ্টি চলার সম্ভাবনা রয়েছে।

একেবারে তীরে এসে তরি ডোবার অবস্থা। চলতি বছরে আবহাওয়া ভালো থাকায় আলুর ভালো ফলনের আশা করেছিল চাষীরা। কিন্তু মরসুমের শেষে একনাগাড়ে অকাল বৃষ্টির ঠেলায় ক্ষতির আশঙ্কায় মাথায় হাত পড়েছে চাষীদের। অধিকাংশ চাষী সমবায় সমিতি অথবা মহাজনের কাছে মোটা অঙ্কের ঋণ নিয়ে আলু চাষ করেন। এবছর শুরু থেকে আবহাওয়া আলু চাষের অনুকূলে থাকায় নিশ্চিন্তে ছিলেন চাষীরা। লাভের ব্যাপারেও বেশ আশাবাদী ছিলেন তারা। কিন্তু মরসুমের শেষে পর পর দুই সপ্তাহের এই দুর্যোগ চাষীদের সেই আশায় জল ঢেলেছে। গত সপ্তাহের বৃষ্টিতেই বহু আলু ক্ষেতে জল জমে গেছে। অনেক জায়গাতেই শিলাবৃষ্টিতে। আলুর ক্ষতি হয়েছে। আগের সপ্তাহের দুর্যোগে পেঁয়াজ বা সর্ষের ক্ষতির পরিমাণ ছিল খুব কম কিন্তু সোমবার থেকে আবহাওয়া দফতর যখন বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে তখন থেকেই মাথা হাত পড়েছে আলু সহ পেঁয়াজ সর্ষে চাষিদেরও ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *