লক ডাউনে লেনিনের মতাদর্শ জনপ্রিয়তার শিখরে জার্মানিতে

International News

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক, নিউ ইয়র্ক,২৫ শে জুন:গোটা বিশ্ব লড়ছে করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে,তার মধ্যে বিকল্প অর্থনীতির ভাবনা উঠে আসছে বিভিন্ন দেশে।জন স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে সমাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র গুলি ব্যাপক ভাবে সফল , সেই ব্যবস্থা নিয়ে ধনতান্ত্রিক দেশ গুলিতে শুরু হয়েছে আলোচনা।বেশ চমকে দিয়েই লেলিনের মূর্তি উন্মোচন শুরু হয়েছে বিভিন্ন দেশে।আরেকদিকে ইউরোপে বর্ণবিদ্বেষ সমর্থনকারী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের মূর্তি ভাঙার ঘটনাও ঘটছে।

গত সপ্তাহে জার্মান শহর গেলসেনকির্চেনে লেনিনের মূর্তি প্রতিস্থাপিত হয়েছে, যেখানে শনিবার শহর কর্তৃপক্ষের বিরোধিতা সত্ত্বেও বিপ্লবী কমিউনিস্ট নেতার একটি নতুন মূর্তি নির্মিত হয়েছিল।

১৯৯০ সালে সমাজতান্ত্রিক পূর্ব জার্মানি (আনুষ্ঠানিকভাবে জার্মান গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্রের) পতনের পর থেকে এই জার্মানীর ভূখণ্ডে লেনিনের এই প্রথম মূর্তি প্রতিষ্ঠা হয়েছে।

একটি দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের মধ্যে সফলতা পেয়েছে জার্মানির ছোট মার্কসবাদী-লেনিনবাদী দল (এমএলপিডি)। গত সপ্তাহে আদালত একটি রায় জারি করে যাতে মূর্তি প্রতিস্থাপন করার অনুমতি দেওয়া হয়। স্মৃতিস্তম্ভটি ১৯৫৭ সালে চেকোস্লোভাকিয়ায় তৈরি হয়েছিল।

গেলসেনকির্চেনের মেয়র ফ্রাঙ্ক বারানোভস্কি বলেছেন তিনি আদালতের সিদ্ধান্ত মানবেন যদিও লেনিনের কোনো অবদান নেই জার্মানিতে সেটাও মনে করিয়ে দেন।এই ঘটনায় বেশ উচ্ছাস দেখা গেছে শ্রমিক কর্মচারিদের মধ্যে।

শনিবার উন্মোচন অনুষ্ঠানে বিপুল জনতার উপস্থিতি দেখা যায়, গণ সঙ্গীত ও বক্তৃতা র মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। অংশগ্রহণকারীদের করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য সংক্রমণের হাত থেকে রক্ষা করতে ফেস মাস্ক পরতে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বলা হয়েছিল।

এমএলপিডি চেয়ারম্যান গ্যাবি ফেচনার বলেছেন: “বর্ণবাদী, ফ্যাসিবাদী, সাম্যবাদবিরোধী অবস্থান নিয়ে মানুষের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছেএবং অতীতের ঘটনা সম্পর্কে মিডিয়ার মিথ্যাচার স্পষ্টভাবেই কেটে গেছে। লেনিনের বিশ্লেষণ বর্তমান সংকটে উত্তরণের রসদ রয়েছে তা বহু মানুষ স্বীকার করতে শুরু করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *