পাহাড়ে উঠলো ফের পৃথক রাজ্যের দাবি নির্বাচনের মুখে

District News Siliguri

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক, উত্তম দে, শিলিগুড়ি, ১লা এপ্রিল :ভোট প্রচারে কাঠি পড়তেই ফিরে এলো পাহাড়ে পৃথক রাজ্যের দাবি ,গোর্খা ভাবাবেগ কে কাজে লাগিয়ে রাজনীতির মঞ্চ ব্যবহার করার অভিযোগ উঠল বিজেপি র বিরুদ্ধে।ভোট যে বড় বালাই, লোকসভা ভোটকে সামনে রেখে পাহাড়ে আবার উঠলো পৃথক রাজ্যের দাবী।বিমল গুরুং এর পরামর্শে বিজেপি দার্জিলিং আসনে প্রার্থী করে রাজনীতিতে একেবারে নতুন মুখ মনিপুরের বাসিন্দা পেশায় বৈদ্যুতিন কোম্পানীর ম্যানেজিং ডিরেক্টর রাজু বিস্টকে।মোর্চার গুরুং গোষ্ঠী এবং জি এন এল এফ বিজেপি প্রার্থীকে সমর্থন করছে, রাজু বিষ্ট মনোনয়ন জমা করবার সময়ের মিছিলেই পৃথক রাজ্যের দাবী ওঠে।এই দাবী দীর্ঘ্যদিন ধরেই পাহাড়ের ভোট নিয়ন্ত্রণ করে আসছে, কখনো ভোট বয়কট কখনো সরাসরি দাবীর সমর্থনে ভোট চেয়েছে পাহাড়ের আঞ্চলিক দলগুলি।

এবারের নির্বাচনে মোর্চার বিনয়-অনিত গোষ্ঠীর বিধায়ক অমর সিং রাই তৃণমুলের টিকিটে ভোটে দাড় হওয়ার পর পরিস্হিতি বদলে যায়, তৃণমুলের চাপে পরে প্রার্থীকে পৃথক রাজ্যের দাবী থেকে সরে যেতে হয়।অন্যদিকে গুরুং-জিএনএলএফের সমর্থনে বিজেপি প্রার্থী প্রথম দিন থেকেই এই দাবীকে ইস্যু করে পাহাড়বাসীর মন পাওয়ার চেষ্টা করে আসছে।অন্যদিকে বামেরা প্রথম দিকে চেষ্টা করেছিলো তৃণমুল-মোর্চা বিরোধী দলগুলির সম্মিলিত প্রার্থীর মনোনয়ন ,কিন্তু এই আলোচনার মাঝেই সিপিআরএম প্রাক্তন সাংসদ রত্ন বাহাদুর রাইকে তাদের প্রার্থী ঘোষণা করে।এই পরিস্হিতিতে বামফ্রন্ট শ্রমিক নেতা,রাজ্যসভার প্রাক্তন সাংসদ সমন পাঠককে প্রার্থী ঘোষণা করে।অন্যদিকে মোর্চার প্রাক্তণ বিধায়ক জাপের প্রতিষ্ঠাতা হরকা বাহাদুর মনোনয়ন জমা করলে তৃণমুল প্রার্থী চাপে পরে যায়,কারন কালিম্পং জেলায় জাপের যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে।এদিকে সিপিআরএম প্রার্থী আর বি রাই মনোনয়ন প্রত্যাহার করেছেন সিপিআই(এম) জেলা সম্পাদক জিবেশ সরকার বাম প্রার্থীকে সমর্থনের আবেদন জানিয়ে ইতিমধ্যেই সিপিআরএম,অখিল ভারতীয় গোর্খা লিগ ও সিপিআই(এম এল) লিবারেশন কে চিঠি দিয়েছেন।তিনি যথেষ্ট আশাবাদী সিপিআরএম বাম প্রার্থী কেই সমর্থন করবে এবং পাহাড়ে গোর্খা সহ সমস্ত জাতি গোষ্ঠীর অর্থনৈতিক উন্নতির লক্ষ্যে কাজ করবে সমতলের সাথে সমতা রক্ষা করে।

Left front rally in siliguri
Left front rally in siliguri

গতকাল বামপ্রার্থীর সমর্থনে শিলিগুড়িতে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়।এই সভায় সুর্য্যকান্ত মিশ্র উপস্হিত ছিলেন।জলপাইগুড়িতে বামেদের সভায় মাইক বৈদ্যুতিন খুঁটিতে বাঁধা নিয়ে প্রশাসনের আপত্তি থাকায় বামকর্মীরা নিজেদের কাঁধে তুলে নেয়,গতকাল শিলিগুড়িতে বামেরা সভায় ব্যবহ্নত মাইক দোকানের ছাদে,গাছের সাথে বেঁধে সভা করে ।যদিও এদিনই শহরের বাবুপাড়ার আলু চৌধুরী মোড়ে তৃণমুলের সভায় ব্যবহ্নত মাইক বৈদ্যুতিক খুঁটিতে বাঁধতে দেখা যায়।

Left set up the mike with tree in siliguri

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *