দীর্ঘ সময় পর থাইল্যান্ডে শুরু হলো পর্যটকদের আগমন

International News

নিউজ ফ্রন্টলাইনার ওয়েব ডেস্ক,ব্যাংকক,২২ শে অক্টোবর:থাইল্যান্ড শুরু করলো তাদের পর্যটন ব্যবসা, মঙ্গলবার চীন থেকে একদল পর্যটকের আগমন ঘটে। করোনাভাইরাস মহামারী মোকাবেলায় এপ্রিল মাসে আন্তর্জাতিক বিমানগুলি নিষিদ্ধ করার পরে এই প্রথম পর্যটকদের আগমন।যদিও ব্যাংককে সরকারি বিরোধী বিক্ষোভের মাঝেই এই পর্যটকদের আগমন।

মঙ্গলবার রাতে সাংহাই থেকে ৩০ জন পর্যটক আগমন করেন দেশের প্রধান সুবর্ণভূমি বিমানবন্দরে।থাই পাবলিক টেলিভিশনগুলি মাস্ক পরিহিত পর্যটকদের বিমানবন্দর থেকে বেরিয়ে আসার ছবি দেখিয়েছে। ছবিতে দেখা যায় সুরক্ষামূলক সরঞ্জামে সজ্জিত আধিকারিকরা লাগেজ গুলিকে স্যানটাইজেশনের ছবি দেখানো হয়। মাস্ক এবং রাবার গ্লাভস পরে পর্যটকদের দেখা যায় হোটেলগুলিতে যাওয়ার জন্য বাসে যাওয়ার। সরকার কর্তৃক ব্যাংককে জরুরী পরিস্থিতি ঘোষণা করার পরে সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীরা সমাবেশে নিষেধাজ্ঞাকে অব্যাহত রাখার সাথে সাথেই পর্যটক দের আগমন ঘিরে শুরু হয়েছে বিতর্ক।

থাই পর্যটন কর্তৃপক্ষের থাইল্যান্ডের গভর্নর যুথাক সুপাসর্ন রয়টার্সকে বলেছেন, এই অস্থিরতা দেশে পর্যটন ব্যবসায় প্রভাব ফেলেনি।এ বিষয়ে এখনও পর্যন্ত পর্যটকদের কোনও কর্মসূচি বাতিল হয় নি।পর্যটন-নির্ভর দেশটি এই বছর মাত্র ৭ মিলিয়ন পর্যটক আসবে যা প্রভাব ফেলেছে দেশের অর্থনীতিতে।

নতুন পর্যটকরা বিশেষ ৯০ দিনের ভিসায় থাকে এবং তাদের দুই সপ্তাহের জন্য – তাদের হোটেল কক্ষগুলিতে সাত দিন কোরানটাইনে থাকা আবশ্যক এবং তাদের কোভিড টেস্ট তিনবার নেগেটিভ হলে তবেই দেশে ভ্রমণের সুযোগ থাকবে।

চীনের গুয়াংজু থেকে ১৪৭ জন পর্যটকদের একটি দ্বিতীয় ব্যাচ আগামী ২৬ শে অক্টোবর আসবে, আগামী মাসে আরও বেশি সময়সীমা নিয়ে।শীতকাল আসন্ন তাই ইউরোপীয় দেশ, আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র, কোরিয়া এবং জাপান থেকে আরও বেশি পর্যটক আদর আবেদন পত্র আসছে বলে জানান দেশের বিদেশমন্ত্রক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *